মোশতাক আহমদের দুইটি অনুদিত কবিতা

1

Boruna’s Handkerchief

Twelve years have passed away, Boruna’s email
after a long long time filled me with surprises.
I felt desperate to reply: Oh Boruna, you silly girl
Why would I take your handkerchief?

After all these years now you want your handkerchief back flavored and famous!
I know very well, taking handkerchief would certainly lead us to separation!
…Then why should I take your handkerchief?

I never wrote to you,
I never risked my life for you,
Now, I sense no aroma in my horizon of sin and virtue!
….Then, where did I hide your renowned handkerchief?

Sometimes, ‘during the starry spring nights’,
I sense a strong smell and realize
The true existence of Boruna’s handkerchief;
I suspect, ‘I wandered all over the world’ and stole Boruna’s
handkerchief, Not the ‘108 blue lotuses’.

মূল বাংলা কবিতা:

বরুণার রুমাল

‘তবু কথা রাখে নি বরুণা, … এখনো সে যে কোনো নারী !’ – সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়

এক যুগ পর বরুণার ই-মেল পেয়ে আমি হতবাক;
লিখতে চাইলাম : না রে না বরুণা, বোকা মেয়ে
আমি তোর রুমালটা নিতে  যাব কেন?
এই যে আজ তুই বিখ্যাত সুগন্ধি রুমালটা
ফেরত চেয়ে পাঠালি,
আমি তো জানতাম রুমাল নিলে বিচ্ছেদ সুনিশ্চিত!

কেন তবে নেব তোর সুগন্ধি রুমাল?

তোকে আমি লিখি নি একটাও চিঠি,
‘হাতের মুঠোয়’ নিই নি আমার প্রাণ,
আজ আমার পাপপুণ্যের দ্রাঘিমা জুড়ে

কোনো সুগন্ধ নেই তো!

কোথায় তবে লুকালাম তোর বিখ্যাত রুমাল?

কোনো কোনো ‘তারায় ভরা চৈত্রমাসের রাতে’
তীব্র সুগন্ধ ভেসে আসে, টের পাই
বরুণার রুমালটাই সত্যিকারের;
সন্দেহ জাগে, ‘১০৮ টা নীলপদ্ম’ নয়, ‘বিশ্বসংসার
তছনছ করে’
ওর রুমালটাই আমি চুরি করেছিলাম।

Code Language (Shandhyo Vasha)

“The boat of compassion has filled up with gold,
No place for a piece of silver.”
– Kombolamborpadanam, Charyagiti : number 8

Again the evening skyline is colored red with Kamod mode of music

The 64-petal lotus bloomed all night long
Inside the brain
Costumed and fragranced
For meeting the blue

The lovely thunderbolt
Fallen into the lake of brain
Fled away on the wings of lotus
To the greatest cycle of happiness, to the far,
to the great eternity of satisfaction

Boat of compassion has filled up
Keeping behind
the fiery home of a poor girl

মূল বাংলা কবিতা:

সান্ধ্য ভাষা

 সোনায় ভরল করুণা-নৌকা।  রূপা রাখবার ঠাঁই নেই।
– কম্বলাম্বরপাদানাম, চর্যাগীতিকা : ৮

আবারও সন্ধ্যা রাঙানো আকাশে কামোদ রাগিণী

তারপর সারা রাত মগজের কোষে
৬৪ পাপড়ির ফুল

কতো প্রসাধনে সাজলো অভিসারিণী

মানস সরোবরে আলোড়ন তুলে বজ্র
বিস্ফারিত পদ্মের পাখায়
উড়ে গেল মহা সুখচক্রে, বিপুল সুদূর বিলাসে

করুণা- নৌকা উঠল ভরে
পেছনে ফেলে রেখে
কোন ডোম্বির আগুনের ঘর

মন্তব্য

টি মন্তব্য করা হয়েছে

logo-1

চারবাকগণ: রিসি দলাই, আরণ্যক টিটো, মজিব মহমমদ, নাহিদ আহসান

যোগাযোগ: ০১৫৫২৪১৯৪৪২, ০১৭১৮৭৬০৮৪৮, ০১৭২০৩০১৬৩০

ই-মেইল: charbak.com@gmail.com
ডিজাইন: ক্রিয়েটর